উক্তি ও বাণী, বাংলা সাহিত্য
সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-min

প্রথিতযশা সাহিত্যিক সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি মেলা । জনপ্রিয় ও আলোচিত বাণী সমাবেশ

Sharing is caring!

প্রথিতযশা বাঙ্গালি সাহিত্যিক সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়, একাধারে কবি, ঔপন্যাসিক, ছোটগল্পকার, সাংবাদিক, কলামিস্ট ও সম্পাদক ছিলেন। ব্যাপক জনপ্রিয় ও পুরোধা ব্যক্তিত্ব সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় ৭ সেপ্টেম্বর ১৯৩৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন এবং ২৩ অক্টোবর ২০১২ সালে মৃত্যুবরণ করেন। তাঁর জন্ম বাংলাদেশের মাদারিপুরে এবং তিনি চার বছর বয়সে কলকাতায় চলে যান। কৃত্তিওবাস নামক একটি কবিতা পত্রিকা সম্পাদনার কাজ শুরু করেন ১৯৫৩ সাল থেকে। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়, বেশ কিছু ছদ্মনাম ব্যবহার করে সাহিত্য রচনা করে গিয়েছেন। যেওন, নীল উপাধ্যায়, নীললোহিত, ও সনাতন পাঠক। শিশু সাহিত্যিক হিসেবেও তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে। জনপ্রিয় ‘কাকাবানু ও সন্তু’ নামের জনপ্রিয় গোয়েন্দা সিরিজের রচয়িতা তিনি। তাঁর উল্লেখযোগ্য বইয়ের মধ্যে রয়েছে – সেই সময়, পূর্ব-পশ্চিম, ভানু ও রানু, অরন্যের দিনরাত্রি, অর্জুন, অর্ধেক জীবন সহ আরো বেশ কিছু জনপ্রিয় উপন্যাস। ১৯৫৮ সালে তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘একা এবং কয়েকজন’ প্রকাশিত হয়। জীবনানন্দ দাশের পর তিনিই ছিলেন বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি। তাঁর রচিত কবিতার বেশ কিছু উক্তি ও পঙক্তি মানুষের মুখে মুখে চলে আসছে যুগ যুগ ধরে। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি ও বাণী নিয়েই আত্মপ্রকাশের এই আয়োজন।

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি । হৃদয়ছোঁয়া বাণী সমাবেশ

কবি ও কথাসাহিত্যিক  সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের উক্তি সমূহকে ৫ টি ভাগে ভাগ করে এখানে উপস্থাপন করা হয়েছে। তাঁর জনপ্রিয় ও আলোচিত বাণী গুলোকেই এই আর্টিকেলে স্থান দেয়া হয়েছে।

  1. জীবন দর্শন নিয়ে উক্তি
  2. মানুষ নিয়ে উক্তি
  3. নারী নিয়ে উক্তি
  4. মন নিয়ে উক্তি
  5. প্রেম ও ভালোবাসা নিয়ে উক্তি

জীবন দর্শন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি সমূহ

সমকালীন অন্যান্য লেখক ও কবিদের থেকে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়কে আলাদা করেছে, তাঁর জীবনবোধ বা জীবন দর্শন। জীবনবোধ নিয়ে তাঁর উক্তিগুলো বরাবরই পাঠকপ্রিয় ছিল এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। জীবন দর্শন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের উক্তি সমূহের কিছু অংশ নীচে উল্লেখ করা হলো-

জীবন-দর্শন-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-২-min

জীবন দর্শন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“অন্ধকার শশ্বানে ভীরু ভয় পায়
সাধক সেখানে সিদ্ধি লাভ করে।”

 

“আত্মগোপন করতে গিয়ে কিছুদিন পর অনেকে আত্মপরিচয়টাই ভুলে যায়।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, তাঁর রচিত ‘পূর্ব-পশ্চিম’ উপন্যাস থেকে চয়ন করা হয়েছে।

“কৃতজ্ঞতা একটা বিষম বোঝা। অনেকেই সারাজীবন এ বোঝা বহনে অক্ষম। তাই এই বোঝা ঝেড়ে ফেলে উপকারী ব্যক্তির শত্রুতা করে তারা স্বস্তি বোধ করে।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, তাঁর রচিত ‘সেই সময়’ উপন্যাস থেকে চয়ন করা হয়েছে।

“আমাকে বিক্রির টাকা হক্কের টাকা
আর আমার রোজগারের টাকা নোংরা টাকা।”

জীবন-দর্শন-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-৪-min

জীবন দর্শন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“ঘটনার চেয়ে রটনার রূপ অনেক বেশী বিচিত্র এবং গতিবেগও প্রচন্ড।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় বাণী, তাঁর রচিত ‘সেই সময়’ উপন্যাস থেকে চয়ন করা হয়েছে।

“সাহিত্য একটা তীব্র নেশা, রক্তের সঙ্গে মিশে যায়, যাকে একবার এই নেশা ধরে, তার আর অন্য কোনো গতি থাকে না। আবার এ কথাও হয়তো ঠিক, অনেক লেখুই এক এক সময় এই নেশা থেকে মুক্তি পেতে চায়! সাহিত্য সৃষ্টিতে খ্যাতি-কীর্তি-অর্থের সম্ভাবনা আছে বটে, কিন্তু তার জন্য লেখককে ভেতরে ভেতরে কত কষ্ট যে সহ্য করতে হয়! এক একসময় রক্ত ক্ষরণের মধ্যে মিশে যায় শব্দের বিষ, তা অন্যদের পক্ষে বোঝা সম্ভব নয়।”



“ইচ্ছে করে অফিস যাবার নাম করে যাই বেলুড় মঠে
ইচ্ছে করে ধর্মাধর্ম নিলাম করি মুর্গীহাটায়
বেলুন কিনি বেলুন ফাটাই, কাঁচের চুড়ি দেখলে ভাঙি
ইচ্ছে করে লণ্ডভণ্ড করি এবার পৃথিবীটাকে
মনুমেন্টের পায়ের কাছে দাঁড়িয়ে বলি
আমরা কিছু ভাল্লাগে না।”

 

“স্তব্ধ আঁধারে কিছুই যায় না দেখা
হে আকাশ তবু ঊষার হৃদয় জ্বালো
কোথায় গেল সে দৃষ্টি-পাগল একা
খুঁজতে সে কোন আঁধার পারের আলো।

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, তাঁর ‘রাত্রি’ কবিতা থেকে চয়ন করা হয়েছে

জীবন-দর্শন-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-৫-min

জীবন দর্শন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“কাঁচের চুড়ি ভাঙার মতন মাঝে মাঝেই ইচ্ছে করে
দুটো চারটে নিয়ম কানুন ভেঙে ফেলি
পায়ের তলায় আছড়ে ফেলি মাথার মুকুট
যাদের পায়ের তলায় আছি, তাদের মাথায় চড়ে বসি
কাঁচের চুড়ি ভাঙার মতই ইচ্ছে করে অবহেলায়
ধর্মতলায় দিন দুপুরে পথের মধ্যে হিসি করি।”

ইচ্ছে কবিতা থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের উক্তিটি।

“ইচ্ছে করে দুপুর রোদে ব্লাক আউটের হুকুম দেবার
ইচ্ছে করে বিবৃতি দিই ভাঁওতা মেলে জনসেবার
ইচ্ছে করে ভাঁওতাবাজ নেতার মুখে চুনকালি দিই।”

 

“আমি এখনও কোনও পাখির ভাষা জানি না বটে, কিন্তু গাছের ভাষা জানি। একরকম দুরকম গাছ নয়, অনেকরকম গাছের​। সুতরাং ইস্টিকুতুম পাখিটির সঙ্গে কথা বলবার জন্য আমি দেবদারু গাছকে অনুবাদক হবার জন্য অনুরোধ করি। আমাদের সংলাপের মধ্যপথে পাশের রাধাচূড়া গাছটি হেসে ওঠে। হাসির কোনও অনুবাদ করবার দরকার হয় না, পাখিটি ও আমি একসঙ্গে বুঝি।”

 

“আমি এমনভাবে পা ফেলি যেন মাটির বুকেও আঘাত না লাগে। আমার তো কারুকে দুঃখ দেবার কথা নয়।”

“ইচ্ছে করে অফিস যাবার নাম করে যাই বেলুড় মঠে
ইচ্ছে করে ধর্মাধর্ম নিলাম করি মুর্গীহাটায়
বেলুন কিনি বেলুন ফাটাই, কাঁচের চুড়ি দেখলে ভাঙি
ইচ্ছে করে লণ্ডভণ্ড করি এবার পৃথিবীটাকে
মনুমেন্টের পায়ের কাছে দাঁড়িয়ে বলি
আমরা কিছু ভাল্লাগে না।।”

 

“ইংরেজের এই ন্যায়বিচারের প্রতীক ঐ সুপ্রিম কোর্টের চূড়া। লোকে এই পথ দিয়ে যাওয়ার সময় ভক্তিভরে সেদিকে তাকায়। এখনো কেউ জানে না যে বিচার ব্যাবস্থার এই আড়ম্বর ইংরেজ জাতির একটি বিলাসিতা মাত্র। প্রয়োজনের সময় এইসব বিলাসিতা ছেঁটে ফেলতে তারা একটুও দ্বিধা করে না।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় বাণী, তাঁর রচিত ‘সেই সময়’ উপন্যাস থেকে চয়ন করা হয়েছে।

জীবন-দর্শন-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-life-quotes-৬-min

জীবন দর্শন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“বাঙালিরা ধর্ম নিয়ে মাতামাতি করে, ধর্ম সংস্কারের ব্যাপারে কেউ কিছু বললেই গেল গেল রব তোলে, কিন্তু এই বাঙ্গালিরাই ব্যক্তি জীবনে ধর্মের প্রায় কোন নির্দেশই মানে না। সততা, পবিত্রতা, সেবা এই সব ব্যাপারে তারা প্রায় অধার্মিক। বাঙালিরা খুব পরের সমালোচনা করে, পরনিন্দা করে কিন্তু আত্মসমালোচনা করে না। বাইরে খুব উদার মত প্রচার করে, নিজের পরিবারের মধ্যে অতি রক্ষনশীল। খবরের কাগজে তর্জন গর্জন দেখলে মনে হবে খুব সাহসী, আসলে অত্যন্ত ভীরু।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, তাঁর রচিত ‘প্রথম আলো‘ উপন্যাস থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

“বিশ্বাসে-শ্রদ্ধায়-ভক্তিতে কেউ যখন নিমগ্ন থাকে তখন তাকে দেখতে বড় ভালো লাগে। চোখ বুজে কেউ ধ্যান করছে,এই দৃশ্যটা দেখলে আমার এখনও শ্রদ্ধা হয়, সে যারই ধ্যান করুক না কেন।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, তাঁর রচিত ‘প্রথম আলো‘ উপন্যাস থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

“এই দুরন্ত রাতের খেলা, কথা ছিল
বনের মধ্যে রেশম, এত লাল রেশম, কথা ছিল ?
বাতাস ভাঙ্গে বিজন দ্বীপ, আকাশ ভাঙ্গে ঘর
দুঃক্ষ ভাঙ্গে নরম হাত, কঠিন হাত, কথা ছিল।
হে সুন্দর, হে আনন্দ, এত সুদূর ?
ফেরার পথ ভুলে যাবার কথা ছিল।”

জীবন-দর্শন-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-life-quotes-bangla

জীবন দর্শন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“এখন অসুখ নেই, এখন অসুখ থেকে সেরে ুঠে
পরবর্তী অসুখের জন্য বসে থাকা। এখন মাথার কাছে
জানলা নেই, বুক ভরা দুই জানলা, শুধু শুকনো চোখ
দেয়ালে বিশ্রাম করে, কপালে জলপট্টির মতো
ঠান্ডা হাত দূরে সরে গেছে, আজ এই বিষম সকালবেলা
আমার উত্থান নেই, আমি শুয়ে থাকি, সাড়ে দশটা বেজে যায়।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় কবিতার চরনটি ‘নীরা ও জীরো আওয়ার‘  কবিতা থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

এইটুকুনি শহর, সেটা যখন তখন ফুরোয়
চেনা মানুষ, ভেজাল কথা, জন্ম-মৃত্যু-মিলন
সব কিছুই তো মাপ মতন, রৌদ্র-বৃষ্টি-শীতও
শুধু চায়ের দোকানটিতে কয়েকজন
ছদ্মবেশী রাখাল!

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় কবিতার চরনটি ‘চায়ের দোকানে‘  কবিতা থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

জীবন-দর্শন-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-৩-min

জীবন দর্শন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

জীবন দর্শন নিয়ে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের উক্তি সমূহ >> শরৎচন্দ্র উক্তি ও বাণী সমাবেশ

মানুষ নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

মানুষ চেনা দায়। তবুও আমরা মানুষকে চিনি নিজের আত্মবোধ দিয়ে। পাশাপাশি কবি, সাহিত্যিকদের মনুষ্যত্ব দর্শন আমাদের মনের সাথে মিলে যায় বলেই আমরা তাঁদের লেখনীর ভক্ত হই। মানুষ নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, মানুষের স্বরুপ বুঝাতে বরাবরই সমর্থ ছিল।

“প্রতি সন্ধ্যেবেলা
আমার বুকের মধ্যে হাওয়া ঘুরে ওঠে, হৃদয়কে অবহেলা
করে রক্ত; আমি মানুষের পায়ের কাছে কুকুর হয়ে বসে
থাকি-তার ভেতরের কুকুরটাকে দেখবো বলে”

মানুষ-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-৭-min

মানুষ নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“মানুষই মানুষকে বাঁচায়, মানুষই মানুষকে মারে। মানুষই হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করে, আবার মানুষই এই বিভেদের রেখা মুছে ফেলতেও পারে।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, তাঁর রচিত ‘প্রথম আলো‘ উপন্যাস থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

আরো পড়ে নিন >> পাঠক মনে দাগ কাটা সমরেশ মজুমদারের হৃদয়ছোঁয়া বাণী 

নারী নিয়ে উক্তি

নারী বিরহ বা নারী বিরহ ছাড়া সাহিত্য অনেকক্ষেত্রেই নিরস। তাই প্রায় প্রতিটি কবি, সাহিত্যিক নারীদের নিয়ে উক্তি করেছেন। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় তাঁর ব্যতিক্রম নয়। নারী নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় বাণী সমূহ যথেষ্ট যুক্তিসংঙ্গত এবং নারী উপযোগী।

নারী-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-৭-min

নারী নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“নারীদের ডিকশনারিতে সন্তুষ্টি বলে কোনো শব্দ নেই।”

 

“দুরন্ত ষাঁড়ের চোখে বেঁধেছি লাল কাপড়
বিশ্ব সংসার তন্ন তন্ন করে খুঁজে এনেছি ১০৮টি নীলপদ্ম!
তবুও কথা রাখেনি বরুনা,
এখন তার বুকে শুধুই মাংসের গন্ধ
এখনো সে যে-কোনো নারী!”

 

“নারীরা সবাই ফুলের মতন, বাতাসে ওড়ায়
যখন তখন
রঙিন পাপড়ি
বাতাস তা জানে, নারীকে উড়াল দেয়ে নিয়ে যায়
তাই আমি আর প্রকৃতি দেখি না,
প্রকৃতি আমার চোখ নিয়ে চলে গেছে!”

‘চোখ নিয়ে চলে গেছে’ কবিতা থেকে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তিটি সংগ্রহ করা হয়েছে।

নারী-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-২-min

নারী নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“তুমি তো আমারই শুধু, দূর থেকে দেখা
শুকনো চুল, ভিজে মুখ, করতলে মসৃণ চিবুক
তুমি নারী
অহঙ্কার তোমাকে মানায় না–
যে তোমাকে দেখে, সেই তোমাকে সুন্দর করে
দ্রষ্টা যে, ঈশ্বরও সে।
তোমার নিঃসঙ্গ রূপ মেশে বাতাসের হাহাকারে।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, ‘দাঁড়িয়ে রয়েছ তুমি’ কবিতা থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

নারী নিয়ে রবী ঠাকুরের উক্তিসমূহ >> রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের উক্তি সম্ভার

মন নিয়ে উক্তি

প্রাণ থাকলে প্রাণী হয় কিন্তু মন না থাকলে মানুষ হয় না। মানুষ ও মন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের উক্তি বরাবরই হৃদয়ছোঁয়া।

দুঃখ-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-min

মন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“কারোর আসার কথা ছিল না
কেউ আসেনি
তবু কেন মন খারাপ হয়।” –

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, ‘স্বপ্নের অন্তর্গত‘ কবিতা থেকে চয়ন করা হয়েছে।

“দুঃখ চেয়েছি, তা বলে এতাটা দুঃখিত হয়ে
থাকতে চাইনি
সকলি গোপন, সকলি নীরব, একা একা শুধু
বুক ভার করা
কার কাছে যাবো, কাকে যে বলবো, কেউ নেই, কোনো
নাম মনে নেই।”

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের এই সময় কবিতা থেকে উক্তিটি সংগ্রহ করা হয়েছে।

মন-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-min

মন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“মন ভাল নেই মন ভাল নেই মন ভাল নেই
কেউ তা বোঝে না সকলি গোপন মুখে ছায়া নেই
চোখ খোলা তবু চোখ বুজে আছি কেউ তা দেখেনি
প্রতিদিন কাটে দিন কেটে যায় আশায় আশায়
আশায় আশায় আশায় আশায়।”

 

“একটি কথা বাকি রইলো থেকেই যাবে
মন ভোলালো ছদ্মবেশী মায়া
আর একটু দূর গেলেই ছিল স্বর্গ নদী
দূরের মধ্যে দূরত্ব বোধ কে সরাবে।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, ‘একটি কথা’ কবিতা থেকে চয়ন করা হয়েছে।

দুরত্ব-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-life-min

মন নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

মন নিয়ে কবি নজরুলের উক্তি >> কাজী নজরুল ইসলামের জনপ্রিয় উক্তিসমূহ

ভালোবাসা নিয়ে উক্তি

প্রেম ও ভালোবাসা নিয়ে কবি সাহিত্যিকদের উক্তির শেষ নেই। প্রেম, ভালোবাসা নিয়ে শুধু কবি, সাহিত্যিকরাই উক্তি করেছেন এমন নয়, সকল জ্ঞানী গুণী মানুষজন কিছুনা কিছু বাণী দিয়ে গেছেন আমাদের। তন্মধ্যে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, মানুষের মনকে অনেকাংশে পুলকিত করেছেন এবং একটি আবেশের সৃষ্টি করেছেন।

“বুকের মধ্যে সুগন্ধি রুমাল
রেখে বরুনা বলেছিল,
যেদিন আমায় সত্যিকারের ভালোবাসবে
সেদিন আমার বুকেও এ-রকম আতরের গন্ধ হবে!”

 

ভালোবাসা-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-love-min

ভালোবাসা নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

 

“তোমাকে যখন দেখি, তার
চেয়ে বেশি দেখি
যখন দেখি না।
চড়ুই পাখিরা জানে
আমি কার প্রতিক্ষায় বসে আছি-
তুমি ব্যস্ত, তুমি একা, তুমি অন্তরাল ভালোবাসো!
সন্ন্যাসীর মতো হাহাকার করে উঠি-
দেখা দাও, দেখা দাও,
পরমুহূর্তেই ফের চোখ মুছি।
হেসে বলি,
তুমি যেখানেই যাও, আমি সঙ্গে আছি!”



“তারপর ওরা হাত ধরে চুপ করে বসে রইলো । আর কোনো কথা নেই, সমস্ত কথার প্রয়োজন ফুরিয়ে গেছে । ওরা বসেই রইলো । ঘাট ক্রমশ নির্জন হয়ে আসছে । বাতাস বইছে বেশ জোরে । বজরাগুলো ও ফিরে যাচ্ছে । সবাই ঘরে ফিরছে । এই দুজনের যেন কোনো ঘরবাড়ি নেই, কথাও ফিরতে হবেনা । এরকম একটি অনন্তকালের দৃশ্য হয়ে ওরা বসেই থাকবে।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি, তাঁর রচিত ‘প্রথম আলো‘ উপন্যাস থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

প্রেম-নিয়ে-সুনীল-গঙ্গোপাধ্যায়-উক্তি-বাণী-sunil-gangopadhyay-quotes-bangla-about-love-min

প্রেম নিয়ে সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি

“আমার ভালোবাসার কোনো জন্ম হয় না
মৃত্যু হয় না-
কেননা আমি অন্যরকম ভালোবাসার হীরের গয়না
শরীরে নিয়ে জন্মেছিলাম।”

উপরোক্ত সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় বাণী, ‘জন্ম হয় না, মৃত্যু হয় না’ কবিতা থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে

প্রেম ও ভালোবাসা নিয়ে রুমির উক্তি >> জালালউদ্দিন রুমির জনপ্রিয় প্রেমবাণী সমূহ

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় বাংলা সাহিত্যের ইতিহাসে উজ্জ্বল নক্ষত্র হয়ে আলোকিত করেছেন বাংলা সাহিত্যকে। প্রথিতযশা ও গুণী এই সাহিত্যিক বাংলা সাহিত্যকে দিয়ে অসংখ্য কবিতা, ছোটগল্প ও উপন্যাস; যা তাকে করে রেখেছে অমর। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় উক্তি ও বাণীর মাধ্যমে আমাদের দিয়ে গিয়েছেন পথনির্দেশনা, যা তাঁকে যুগের পর যুগ অবিস্মরণ করে রেখেছে এবং অদূর ভবিষ্যতেও রাখবে।
এই আর্টিকেলে উল্লেখিত উক্তিগুলো তাঁর রচিত উপন্যাস, কবিতা, ছোটগল্প এবং বিভিন্ন বাংলা ব্লগ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

Share this Story
Load More Related Articles
Load More By মোঃ ওয়ালীউল্লাহ অলি
Load More In উক্তি ও বাণী

Facebook Comments

2 Comments


  1. […] […]

    Reply

  2. […] সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের উক্তিগুলো পড়ে নিন >> সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় আলোচিত উক্তি […]

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

কেউ কথা রাখেনি – সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় । বাংলা কবিতা আবৃত্তি ও ছবিসহ পড়ুন

কেউ কথা রাখেনি কবিতাটি, সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের একটি অনবদ্য ...

Facebook

আত্মপ্রকাশে সাম্প্রতিক

আত্মপ্রকাশ নির্বাচিত গল্প

 

attoprokash-bannar

আত্মপ্রকাশে নির্বাচিত গল্পে আপনার গল্পটি প্রকাশ করতে ক্লিক করুন  >> গল্প প্রকাশ

অথবা যোগাযোগ করুন – ফেইসবুক ইনবক্স

ইমেইলঃ attoprokash.blog@gmail.com