উক্তি ও বাণী

হক সাহেব, শেরে বাংলা উপাধি পাওয়া এ কে ফজলুল হকের আসল নাম আবুল কাশেম ফজলুল হক। সাহিত্য, কূটনীতি বা রাজনীতিতে রেখে গেছেন অবিস্মরণীয় অবদান। কলকাতার মেয়ার, অবিভক্ত বাংলার প্রধানমন্ত্রী, পূর্ব পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী, পাকিস্থানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পূর্ব পাকিস্থানের গভর্নর থেকে শুরু করে বড় বড় পদে উচ্চাসীন হয়েও ভুলে যাননি তার মূল। জনগনের সুখ দুঃখের সাথী হয়ে থেকেছেন সর্বদা। ব্রিটিশ আমল থেকে শুরু করে পাকিস্থান আমলে সমানতালে করেছেন রাজনীতি। ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনে কাজী নজরুল ইসলাম সম্পাদিত নবযুগ পত্রিকায় অর্থায়ণ করেছেন, প্রকাশ করেছেন। গুণী এই শিল্পমনা রাজনৈতিকের জীবনের অভিজ্ঞতার আলোকেই সাজানো হয়েছে আত্মপ্রকাশের আয়োজন। যেখানে তুলে ধরা হয়েছে শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের উক্তি ও বাণী। যা তাঁর গভীর মূল্যায়ণ প্রসূত।

শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের উক্তি ও বাণী

শেরে বাংলা তাঁর মেধা ও মনন দিয়ে যে কঠিন পথ অতিক্রম করে এসেছেন, সেই পথের কিছু অভিজ্ঞতার আলোকেই অল্প কিছু উক্তির সমন্বয়ে সাজানো হয়েছে এই পর্ব।

দেশ-নিয়ে-শেরে-বাংলা-এ-কে-ফজলুল-হকের-উক্তি-বাণী-sher-e-bangla-ak-fazlul-haque-quotes-bangla-bani-2-min

শেরে-বাংলা-এ-কে-ফজলুল-হকের-উক্তি

“যে জাতি তার বাচ্চাদের বিড়ালের ভয় দেখিয়ে ঘুম পাড়ায়, তারা সিংহের সাথে লড়াই করা কিভাবে শিখবে? ”

 

“ লাঙ্গল যার জমি তার ”

 

“ নিজেকে বিলিয়ে দিতে হবে জাতির সহায়তায়। মহত্ত্ব নিয়ে অনাসক্ত হয়ে ব্যক্তিসত্তার স্বকীয়তা ভূলতে হবে; লুপ্ত করতে হবে। জাতির স্বার্থই হবে ব্যক্তির স্বার্থ। জাতির কল্যাণেই হবে ব্যক্তির কল্যাণ।”

 

“জাতির স্বার্থই হবে ব্যক্তির স্বার্থ। জাতির কল্যাণেই হবে ব্যক্তির কল্যাণ।

জাতি-নিয়ে-শেরে-বাংলা-এ-কে-ফজলুল-হকের-উক্তি-বাণী-sher-e-bangla-ak-fazlul-haque-quotes-bangla-bani-2-min

শেরে-বাংলা-এ-কে-ফজলুল-হকের-উক্তি

“যারা পানিতে ডুবে যাওয়ার ভয়ে তার সন্তানকে ডোবায় নামতে দেন না,
কিভাবে সে সন্তান আটলান্টিক পাড়ি দিবে?”

 

“আপনি যদি কোন ভালো কাজ করেন তাহলে লোকে আপনার সমালোচনা করবে।”

 

“আম গাছে আম ধরে বলেই লোকে ঢিল মারে।”

 

“ফজলি আম গাছে আরও বেশি করে মারে; শেওড়া গাছে কেউ ঢিল মারে না।”

শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের অকুণ্ঠ এবং সংগ্রামী জীবন যেকোন মানুষকে অনুপ্রাণিত করতে সক্ষম। যদিও আমরা তাঁর খুব বেশি উক্তি খুঁজে পাইনি। তথাপি যেকয়টা উক্তি উপস্থাপিত হয়েছে তা থেকে জীবনের গভীর উপলব্দির প্রকাশ পেয়েছে এবং আমাদের পথকে সুগম করবে।

Facebook