একুশ শতকের সাহিত্যিক, বাংলা সাহিত্য, বুক রিভিউ
মা-মা-মা-এবং-বাবা-বুক-রিভিউ-আরিফ-আজাদ-ma-ma-ma-ebng-baba-book-review-arif-azad (1)

মা, মা, মা এবং বাবা বুক রিভিউ । আরিফ আজাদ । রিভিউয়ার >> তানজিনা তানিয়া

Sharing is caring!

আরিফ আজাদ রচিত ‘মা, মা, মা এবং বাবা বুক রিভিউ নিয়েই আত্মপ্রকাশের এই আয়োজন। বইটি রিভিউ করেছেন  তানজিনা তানিয়া।

বইঃ মা, মা, মা এবং বাবা
সম্পাদকঃ আরিফ আজাদ
জনরাঃ ইসলামিক গল্প
প্রকাশকঃ সমকালীন প্রকাশন
প্রকাশকালঃ সেপ্টেম্বর ২০১৮
পৃষ্ঠাঃ ১৭৫
মুদ্রিত মূল্যঃ ২৩৫ টাকা
রিভিউয়ারঃ তানজিনা তানিয়া

মা, মা, মা এবং বাবা বুক রিভিউ । আরিফ আজাদ 

প্রারম্ভিকা: মা , মা, মা এবং বাবা, নামটাই কত অদ্ভুত, তাই না? শুধু অদ্ভুত না। অদ্ভুতরকম সুন্দর। আমার কাছে বর্তমানে অনেকগুলো এমন বই আছে, যেগুলো আমি পড়িনি এখনও। পড়তে বসতে ইচ্ছাই করেনি। কিন্তু এই বইটির অসম্ভব সুন্দর আর আনকমন নামটি আমাকে টেনে হেঁচড়ে বইটির কাছে নিয়ে গেছে। আর যে আমি বই পড়তে অনেক সময় নেই, সেই আমাকে বইটি এক বসাতে পড়তে বাধ্য করেছে। ১৭৫ পৃষ্ঠার একটি বই কিন্তু এক বসাতে পড়া চাট্রিখানি কথা নয়। শ্রদ্ধেয় আরিফ আজাদ ভাইয়ের সম্পাদিত ১৭৫ পৃষ্ঠার বইটিতে ৩৫ টি ইসলামিক গল্পের পাশাপাশি রয়েছে কুর’আন ও হাদিস থেকে নেওয়া নয়টি ইসলামিক গল্প-ঘটনা।

মা, মা, মা এবং বাবা বুক রিভিউ । সার সংক্ষেপ

বইয়ের প্রথম গল্পটিতেই রয়েছে একজন মায়ের গর্ভে সন্তান আসার সময় থেকে শুরু করে বিয়ে করে মায়ের থেকে দূরে চলে যাওয়া পর্যন্ত মায়ের পুঙ্খবনুপুঙ্খ সব অনুভূতির কথা। নিজ সন্তানকে লিখা একজন মায়ের চিঠিতে উঠে এসেছে সন্তানের প্রতি মায়ের ভালোবাসা, টান আর হাহাকারের কথা। বইয়ের দ্বিতীয় গল্পটিতে একজন বাবার আত্নকথন রয়েছে। একজন লোক তার প্রথম জীবনে কিছুটা উছৃঙ্খল জীবন-যাপনে অভ্যস্ত ছিল। একদিন সে একজন অন্ধ মহিলাকে পায়ে ল্যাং মেরে ফেলে দেয়। আল্লাহ-পাকের লীলাখেলার স্বীকার হয়ে সেই লোকটির প্রথম সন্তান জন্ম নেয় অন্ধ হয়ে। কিন্তু সে তার নিজের প্রতিবন্ধী সন্তানকে প্রচুর অবহেলা করে এবং পরবর্তীতে জন্ম নেয়া তার দুজন সন্তানকে সন্তানের স্নেহ-মমতায় আগলে রাখে কেবল। কিন্তু মহান আল্লাহ-পাকের অশেষ কৃপায় সেই ছেলেটির একদিনের আচরণ বদলে দিয়েছিল উছৃঙ্খল সেই বাবার জীবন। গল্পটির শেষে এসে চোখের পানি ধরে রাখা কঠিন। বইয়ের তৃতীয় গল্পটিতে একজন মা সমুদ্রের পাড়ে একটা ত্রিকোণা চাদরের উপর বসে ছেলের জন্য অপেক্ষা করছে। মহিলাটির ছেলে তাকে এখানে অপেক্ষা করতে বলে গেছে আর হাতে দিয়ে গেছে একটি চিঠি। মহিলাটি নিজে পড়তে পারে না। চিঠিটি যে লোকটি পড়ে সে’ই কেবল জানতে পারে কি নির্মম কথা লিখা ছিল চিঠিতে। বইয়ের চতুর্থ গল্পে একজন ছেলে বাবা-মা’র অতি উত্তম ব্যবহার করে। তার ধারণা সে তার বাবা-মায়ের পূর্ণ হক আদায় করে ফেলছে। কিন্তু তার সেই ধারণা অদ্ভুত এক খেলার মাধ্যমে ভুল প্রমাণ করে দেয় তার জন্মদাতা পিতা। তার বাবার করা খেলাটি সত্যিই বুদ্ধীদিপ্ত একটি খেলা ছিল। বইয়ের পঞ্চম গল্পের নাম “উপহার”। এই গল্পে ছেলেটির মা মারা যায়। তার বাবাই তাকে লালন-পালন করে বড় করে। একদিন বাবার কাছে একটি উপহার চায় ছেলেটি। বাবা শর্ত জুড়ে দেয় যে, যদি সে পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করতে পারে, তবে উপহারটি পাবে। উপহারটি পাওয়ার লোভে ছেলে আগের চেয়েও বেশি মনোযোগ দিয়ে পড়তে থাকে। ছেলের পরীক্ষার ফলাফল ভালো হয়। সে তার বাবার কাছে উপহারটি চায়। তার বাবা তাকে একখানা কুরআন-শরীফ উপহার দেয়। ছেলে রাগ করে বাড়ি ছেড়ে চলে যায়। কিন্তু ছেলেটির জানা ছিল না, এই কুরআনের পাশেই ছিল তার চাওয়া উপহারটি। অনেক বছর পর যখন সে ঘটনাটি জানতে পারে, তখন আর তার বাবা বেঁচে ছিল না। বইয়ের ষষ্ঠ গল্পটি একজন মায়ের আত্নত্যাগের গল্প। ছেলে তার মায়ের একটি বিশেষ দুর্বলতা নিয়ে লজ্জিত। কিন্তু ছেলের জানা ছিল না যে, মায়ের এই দুর্বলতার জন্য ছেলে নিজেই দায়ী। বইয়ের পরের গল্পটিতে রয়েছে একজন মা কি করে আগুন লেগে যাওয়া অ্যাপারটমেন্ট থেকে তার সন্তানকে অক্ষত অবস্থায় পেল। সন্তানের জন্য মায়ের মনে যে কি আকুতি, সেটা এই গল্পে প্রতীয়মান হয়েছে। এরপরের গল্পটিতে বাবার মনে কষ্ট দেওয়ার দরুণ বাবার অভিশাপে ছেলের করুণ পরিণতি এবং ছেলেটির একদিন মরতে মরতে বেঁচে যাওয়ার কাহিনী রয়েছে। এরপরের গল্পে বাবার প্রতি সন্তানের মনোভাব কেমন হওয়া উচিত, সেটা দেখিয়ে দেওয়া হচ্ছিলো। বইয়ের দশম গল্পটিকে একটি গল্প বলা যাবে না। এই গল্পটা খন্ড খন্ড কয়েকটি গল্পের সমন্বয়ে গঠিত একটি গল্প। গল্পটি একজন মায়ের মিথ্যা বলার গল্প। সন্তানের মুখে হাসি দেখার জন্য একজন মা যে পদে পদে কত মিথ্যা বলে সেটাই উঠে এসেছে গল্পটিতে। অনেকগুলো বলে ফেলেছি। সব গল্পের থিম বলে দিলে সদ্য প্রকাশিত বইটির স্পয়লার হয়ে যাবে। . বইয়ের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি হাদিস: ১.’এবং(হে মুহাম্মদ, কুর’আনের মাধ্যমে) উপদেশ দিতে থাকুন: কারণ উপদেশ মু’মিনদের উপকারে আসে। ২.নিজের ভালো কাজের উল্লেখ করে দু’আ করলে আল্লাহ তা কবুল করেন; বিশেষ করে যখন কেউ বিপদে থাকে। ৩.ভালো কাজ খারাপ মৃত্যুতে বাঁধা দেয়।

বইয়ের একটি গল্পের প্রিয় একটি অংশ:

সে যখন বিল পরিশোধ করে বেরোতে যাবে, তখন রেস্টুরেন্টে উপস্থিত লোকদের মধ্য থেকে একজন দাঁড়িয়ে তাকে বললো, “মাফ করবেন, আপনি কি কিছু রেখে যাচ্ছেন এখানে? ছেলেটি লোকটির দিকে তাকিয়ে বললো, ‘না তো, কিছু রেখে যাচ্ছি বলে মনে পড়ছে না। লোকটি বললো, “আপনি অবশ্যই কিছু রেখে যাচ্ছেন। আপনি আজ এই রেস্টুরেন্টে প্রতিটি সন্তানের জন্য এই শিক্ষা রেখে যাচ্ছেন যে, কীভাবে বৃদ্ধ পিতা-মাতার সেবা-যত্ন করতে হবে। .

‘মা, মা, মা এবং বাবা’ নামকরণ

বইয়ের নামকরণ খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি জিনিস। বইয়ের নাম মানুষকে আকৃষ্ট করে। আবার পাঠক বই কিনার পর যদি দেখে বইয়ের থিমের সাথে নামের অসামঞ্জস্য তাহলেও পাঠক বিরক্ত হয়। পুরো বইটি বাবা-মায়ের বিভিন্ন গল্পে ঠাসা। গল্পগুলোতে মা-বাবার প্রতি সন্তানের কর্তব্য, সন্তানের জন্য বাবা-মায়ের মনের টান ইত্যাদি বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেকটি গল্প বাবা-মা আর সন্তানকে নিয়েই। সুতরাং এদিক থেকে চিন্তা করলে নিঃশ্বাস বন্ধ করে বলে দেওয়া যায় যে, দারুণ একটি নাম হয়েছে বইটির। সুতরাং বইয়ের নাম পুরোপুরি স্বার্থক। . প্রচ্ছদ: বাবা-মা নিয়ে লিখা ইসলামিক গল্পের বইটির প্রচ্ছদ নিয়ে সমালোচনা করা সম্ভব নয়। কারণ খুবই সাদাসিধে প্রচ্ছদটিতের নীচে বাবা ও মায়ের ধরে রাখা হাতের মাঝখানে সন্তানের ছোট কোমল হাতটির ছবি দেয়া হয়েছে। আলহামদুলিল্লাহ! প্রচ্ছদটি অনেক সুন্দর। . ফন্ট, বাঁধাই: বইয়ের কাগজের ধরণ, সাইজ এসব আমি এত বুঝিনা। কেবল এটিই বলতে পারি যে পৃষ্ঠা কোয়ালিটি খুবই চমৎকার এবং ফন্ট সাইজ এমন যে, এটা যে কোন বয়সের মানুষের চোখের জন্য আরামদায়ক হবে।

মা, মা, মা এবং বাবা বুক রিভিউ । ব্যক্তিগত মতামত

ইসলামিক গল্প আর হাদিসে ঠাসা বইটি পড়ে আমি সমালোচনা করার মতো তেমন কিছুই পাইনি। তবে স্পাদক কিছু সাধারণ বানানে ভুল করেছেন হয়তোবা। অথবা এগুলো টাইপিং মিস্টেইক হতে পারে। যেমন হৃদয় বানানে ঋ কার ব্যবহার, কখনও প্রতিবেশি আবার কখনো প্রতিবেশী লিখা হয়েছে। শুকরিয়া বানানটাও এভাবে না লিখে অন্যভাবে লিখেছেন। আমার নিজের জানাতেও ভুল থাকতে পারে। কি/কী’র ব্যবহারেও গণ্ডগোল মনে হলো। এরকম আরও দুই একটি বানান ভুল মনে হলো। আমি নিজেই বানান সম্পর্কে অজ্ঞ। তাই আবার বলছি, আমার জানাতেও ভুল থাকতে পারে। প্রত্যেকটি গল্পে একটি করে হাদিসের উল্লেখ থাকলে আরও ভালো হত বোধহয়। আর কিছু গল্প আগেও অনলাইনে পড়েছি বলে মনে হয়েছে। ব্যক্তিগত রেটিং ৪.৬/৫ . পাঠ প্রতিক্রিয়া: আমি প্রথমেই বলবো যে, এমন একটি বই পড়তে পারার জন্য আলহামদুলিল্লাহ। প্রতিটি গল্প পড়ার পর পরই যেন আমার নিজের ভিতর একটু একটু পরিবর্তনের হাওয়া লাগছিলো। ইসলামিক গল্প হাদীসের প্রতি আমার ছোটবেলায় বেশ আকর্ষণ ছিল। মাঝখানে অন্য জনরার সাহিত্য বিষয়ক বই আমাকে ইসলামি সাহিত্য খেকে দূরে ঠেলে দিয়েছিল। এই বইটি পড়ে আবারও ইসলামি সাহিত্য’র প্রতি ঝুঁক আসলো বলে মনে হচ্ছে। বেশ কয়েকটি গল্পে টুইস্ট ছিল। আহ আলহামদুলিল্লাহ! ইসলামিক গল্পে টুইস্ট থাকলে যেন অদ্ভুত এত পূর্ণতায় ভরে উঠে মন। আমি কোনো একটি গল্পকেও মানহীন বলতে পারবো না। প্রত্যেকটি গল্পই শিক্ষামূলক ছিল। বইটি পড়ে মনের মধ্যে খুব অনুশোচনা হলো। মনে হলো আহা! অজান্তে বাবা-মায়ের মনে কত কষ্টই না দিয়েছি! এই বইটি পড়ার পর আমার বাবা-মাকে আমার নতুন লাগছে। নতুন কোনো দৃষ্টিতে যেন আমি তাদের দেখছি। আমার ভিতরের কিছু জড়তা এবং কালিমা যেন দূর করে দিলো বইটি। প্রত্যেকটা গল্প ছিল ভিন্ন স্বাদের আর মনকে নাড়া দেওয়ার মতো।

বইঃ মা, মা, মা এবং বাবা
সম্পাদকঃ আরিফ আজাদ
জনরাঃ ইসলামিক গল্প
প্রকাশকঃ সমকালীন প্রকাশন
প্রকাশকালঃ সেপ্টেম্বর ২০১৮
পৃষ্ঠাঃ ১৭৫
মুদ্রিত মূল্যঃ ২৩৫ টাকা
রিভিউয়ারঃ তানজিনা তানিয়া

যেকোনো অনলাইন মাধ্যম থেকে বইটি বিশেষ ছাড়ে কিনে নিতে পারেন।

Share this Story
Load More Related Articles
Load More By তানজিনা তানিয়া
Load More In একুশ শতকের সাহিত্যিক

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

অন্দরমহল বুক রিভিউ । সাদাত হোসাইন। রিভিউয়ার >> তানজিনা তানিয়া

সাদাত হোসাইন রচিত অন্দরমহল বুক রিভিউ নিয়েই আত্মপ্রকাশের ...

Facebook

আত্মপ্রকাশে সাম্প্রতিক

আত্মপ্রকাশ নির্বাচিত গল্প

 

attoprokash-bannar

আত্মপ্রকাশে নির্বাচিত গল্পে আপনার গল্পটি প্রকাশ করতে ক্লিক করুন  >> গল্প প্রকাশ

অথবা যোগাযোগ করুন – ফেইসবুক ইনবক্স

ইমেইলঃ attoprokash.blog@gmail.com